১৪ নাকি ১৫ তারিখ কবে খুলেছে স্কুল? নাকি আবার বাড়বে গরমের ছুটি? বিস্তারিত জেনে নিন

দীর্ঘ দেড় মাসের ছুটির পর খুলতে চলেছে রাজ্যের সরকারি স্কুলগুলি। আর মাত্র তিন-চার দিনের অপেক্ষা, তারপরেই আবার সরকারি স্কুলগুলিতে শুরু হয়ে যাবে নিয়মিত পঠন-পাঠন। তবে বর্তমানে অনেকের মনেই স্কুল খোলার দিন নিয়ে প্রশ্ন আছে ।

এরকম চাকরি, প্রকল্প, স্কলারশিপ, ব্যবসা প্রভৃতি বিষয় খবর পেতে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ ও টেলিগ্রাম গ্রুপ জয়েন হতে পারেন

এই বিষয়ে আপনারদের জানিয়ে দিই যে,আগামী ১৪ই জুন, বুধবার এবছরের গরমের ছুটি শেষ হচ্ছে। অর্থাৎ ১৫ই জুন, বৃহস্পতিবার থেকে সরকারি স্কুলগুলিতে নিয়মিত পঠন-পাঠন শুরু হবে । এবিষয়ে অনেকের মনে এটাও প্রশ্ন রয়েছে যে, গরমের কারণে আবার ছুটি বাড়বে কি না।

আবার ছুটির বাড়ার প্রশ্ন উঠে আসলে অনেক বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, খুব সম্ভবত এবছর আর গরমের ছুটি বাড়ার আর কোনও সম্ভাবনা নেই। গত কালকের বৃষ্টির পর দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলাতে আবহাওয়ার পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হয়েছে। তাছাড়া এমনিতেই এবছর গরমের ছুটির কারণে নষ্ট হয়েছে ৫০ দিনেরও বেশি ক্লাস।

এমন পরিস্থিতিতে আবার গরমের ছুটি বাড়ালে ব্যাপক ভাবে ধাক্কা খাবে রাজ্যের শিক্ষা পরিকাঠামো । এমনিতেই বছরে-বছরে বেসরকারি ও সেন্ট্রাল বোর্ডের স্কুলগুলির দিকে অভিভাবকদের আকর্ষণ বাড়ছে। কমছে রাজ্য শিক্ষা বোর্ডের আকর্ষণ, ইতোমধ্যেই মাধ্যমিক পরীক্ষাই এর প্রভাব দেখা গিয়েছে, এবছর কমেছে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের সংখ্যা।

এমন পরিস্থিতিতে আবার গরমের ছুটি বাড়াতে চাইবে না রাজ্য সরকার তথা শিক্ষা দফতর কতৃপক্ষ । এবিষয়ে এর আগেই এবছরের গরমের ছুটি নিয়ে অনেক টানা টানি হয়েছে। পূর্বনির্ধারিত ৫ই জুন এবং ৭ই জুন স্কুল খোলার তারিখ ইতিমধ্যেই একবার পিছিয়ে ১৫ই জুন করা হয়েছে।

এবিষয়ে ইতিমধ্যেই ১৫ তারিখ থেকে স্কুল খোলা নিয়ে বেশকিছু নির্দেশিকাও জারি করা হয়েছে রাজ্য শিক্ষা দফতরের তরফ থেকে। মিড ডে মিল থেকে শুরু করে অতিরিক্ত ক্লাস এবং স্কুল পরিষ্কার-পরিছন্ন রাখার জন্য স্কুল তথা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান এবং শিক্ষক-শিক্ষিকাদের উদ্যেশে জারি করা হয়েছে বেশ কিছু নিয়ম ও নির্দেশিকা।